রবিবার | ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

জাতির পিতার প্রতি কোন অসম্মান মেনে নিব না : হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসন

প্রকাশিত :

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: শনিবার সপ্তাহিক বন্ধের দিন। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দিনটি পরিবার ও ব্যক্তিগত প্রয়োজনে অতিবাহিত করেন। কিন্তু যখন তাদেরকে বলা হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সম্মান রক্ষায় প্রতিবাদ করতে হবে তখন আর কেউ ঘরে বসে থাকেননি। শনিবার সকালে হবিগঞ্জ শহরের কালেক্টরেট প্রাঙ্গনে স্থাপিত মঞ্চ ও প্যান্ডেল তাই কানায় কানায় ভরে যায়। অনেক সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদেরকে দাঁড়িয়ে থেকে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে।

 

ছবি- মঞ্চে উপবিষ্ট জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ বিপিএম,পিপিএমসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ।

শুধু জেলা শহরেই নয়। জেলার ৯টি উপজেলায়ও শনিবার ছিল একই চিত্র। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা স্বত:স্ফূর্ত অংশ নেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুৃ শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদ সমাবেশে। জেলার সকল সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের আয়োজনে এ প্রতিবাদ কর্মসূচির নাম ছিল “জাতির পিতার সম্মান, রাখব মোরা অম্লান”।
হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তৃতা করেন ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ এস এম নাসিম রেজা, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক জিয়া উদ্দিন মাহমুদ, হালিম উল্ল্যা চৌধুরী, সুদীপ্ত দাস, সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম, সরকারি বৃন্দাবন কলেজের অধ্যক্ষ দেওয়ান জামাল উদ্দিন প্রমুখ।

 

ছবি- সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলেন আমাদের অস্তিত্ব এবং স্বাধীনতার বিমূর্ত প্রতীক। আমাদেরকে জাতির পিতার অনুভূতি হৃদয়ে ধারণ করতে হবে। আমরা জাতির পিতার সামান্য অসম্মান করতে দিব না। কেউ যদি সামান্য অসম্মানের চেষ্টা করে তাহলে আমরা এর দাতভাঙ্গা জবাব দিব।

আজকের সর্বশেষ সব খবর