শনিবার | ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বানিয়াচং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র শাওন ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত, বিন্দু বিন্দু সহযোগিতায় বেঁচে যেতে পারে একটি প্রাণ

প্রকাশিত :

মোক্তাদির হাসান সেবুল, বানিয়াচং থেকে: শাওন মিয়া বয়স (১৪)।বানিয়াচং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। যে বয়সে সে মাঠে সহকর্র্মীদের সাথে নানান খেলায় মেতে থাকার কথা, সে বয়সে ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে ক্রমাগত স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছে। এগিয়ে যাচ্ছে এক অজানা পথে।শাওন  বানিয়াচং উপজেলার ২নং ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত আমীর মহল্লার শাহ আলম মিয়ার পুত্র। শাওন  প্রায় ৬ মাস যাবত মাথা ও চোখের ব্যথ্যাসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছে। চিকিৎসকের পরামর্শে তার মাথা এমআর করালে ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে। ডাক্তার বলেছেন যত দ্রুত সম্ভব অপারেশন করানোর জন্য। না হলে শাওনকে বাঁচানো যাবে না। কিন্তু অপারেশন করতে ব্যয় হবে প্রায় তিন লাখ টাকা। অথচ তাদের অর্থনৈতিক অবস্থা নূন আনতে পান্তা ফুরানোর ন্যায়। অসহায় শাওন এর পিতা শাহ আলম মিয়া একজন দিন মজুর। শ্রমের মাধ্যমেই তিনি টাকা উপার্জন করেন। ঘরে ছোট ছোট ৩ বাচ্চাসহ ৫ জনের সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি তিনিই। কিন্তু এখন আরো অসহায় হয়ে পড়েছেন তার এই অসুস্থ ছেলে শাওনকে নিয়ে। চিকিৎসকরা বলছেন, পুরোপুরি সুস্থ হতে তার টাকা ব্যয় হবে ৩/৪লক্ষ টাকা। যেখানে পরিবারের সবার জন্য দু’বেলা খাবার যোগাতেই তিনি ক্লান্ত, সেখানে এ অবস্থায় শাওনের এর ব্রেইন টিউমার নিয়ে বেঁচে থাকাটাই অসম্ভব হয়ে পড়েছে। চিকিৎসার টাকা যোগার করতে পারছে না তার পরিবার। এমতাবস্থায় তিনি তাকিয়ে আছেন সমাজের বিত্তবানদের দিকে। যাদের সামান্য সহযোগিতায় আবারও ফিরে আসতে পারে শাওন স্বাভাবিক জীবনে। মানুষের জন্যই তো মানুষ।সঙ্কটে-বিপদে মানুষই মানুষকে ছুটে এসে সাহায্য করবে এই প্রত্যাশা আমরা করতেই পারি। না হলে মানব-জন্ম অনেকটাই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। মানুষের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যারা অন্যের বিপদে সাহয্যে এগিয়ে আসার জন্য প্রস্তুত থাকেন। ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য।’ ভূপেন হাজারিকার সেই কালজয়ী মানবতার গানটিকে সামনে রেখে এগিয়ে আসুন একজন সম্ভাবনাময় মানুষের জন্য। একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে যদি একটি প্রাণ বাঁচে; একজন মানুষ বাঁচার স্বপ্ন দেখে তাতেই হয়ত জীবনের স্বার্থকতা খুঁজে পাওয়া সম্ভব। শিশু শাওনের পিতা শাহ আলম মিয়া সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার জন্য বিনীত অনুরোধ করেছেন। তিনি বলেন, আমি আমার ছেলে শাওনের চিকিৎসার সাধ্যমত অনেক চেষ্টা করেছি, কিন্তু এখন আর আমার একার পক্ষে সম্ভব নয়। আমি এখন নিরুপায় হয়ে পড়েছি। তাই সমাজের বিত্তবানদের প্রতি আমার আহবান আমার কলিজার টুকরা সন্তান শাওন এর সুচিকিৎসায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে।

শাহ আলম মিয়ার সাথে যোগাযোগ ও সাহায্য পাঠানোর বিকাশ নাম্বার ০১৭৬৪–৩৮৫২৯০ (বিকাশ পারসোনাল)

একাউন্ট নাম্বার ডাচ বাংলা ব্যাংক হবিগঞ্জ শাখা।

 

 

আজকের সর্বশেষ সব খবর