রবিবার | ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

নবীগঞ্জে পাহাড় কাটার দায়ে ৪জনকে জেল-জরিমানা, ট্রাক্টর ও এক্সেভেটর জব্দ

প্রকাশিত :
এম.মুজিবুর রহমান,নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) থেকে : হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার পাহাড়ি দ্বীপ খ্যাত দিনারপুর পরগনার পানিউমদা ইউনিয়নের বড়গাঁও গ্রামে পাহাড় কাটা চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে গভীর রাতে নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের ঝটিকা অভিযানে পাহাড় কাটায় জড়িত ৪জনকে আটক, ৩টি ট্রাক্টর, ও একটি এক্সেভেটর মেশিন জব্দ করা হয়েছে।
পরে আটককৃতদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে জেল ও জরিমানা প্রদান করা হয়।
শুক্রবার ভোর রাত পর্যন্ত চলা অভিযানে নেতৃত্ব দেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন।
জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার দিনারপুরের পানিউমদা ইউনিয়নের বড়গাঁও গ্রামের লুৎফুর রহমান নামে এক ব্যক্তি স্থানীয় একটি পাহাড় থেকে অবৈধভাবে রাতের আধারে পাহাড় কেটে উজার করছিল।
পাহাড় কেটে পাহাড়ি মাটি দিয়ে নিকটবর্তী স’মিলের জায়গা একটি ভরাট করা হচ্ছিল।
এরই প্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে তিনজন ট্রাক্টর চালকসহ ৪জনকে আটক করা হয়। এসময় পাহাড় কাটায় ব্যবহৃত তিনটি ট্রাক্টর ও একটি পাহাড় কাটার মেশিন এক্সেভেটর জব্দ করা হয়। শুক্রবার ভোর রাত পর্যন্ত চলে এ অভিযান। অভিযানে আটককৃতরা হলেন, ট্রাক্টর চালক সুমন আহমেদ,নাঈম মিয়া,রুবেল মিয়া ও আব্দুর রহমান। রাতেই অভিযানে নেতৃত্বদানকারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মহিউদ্দিন ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটককৃতদের, বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ অনুযায়ী ট্রাক্টর চালক সুমন,রুবেল নাঈমকে তিন মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং আব্দুর রহমানকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ৫০০০০ টাকা (অনাদায়ে আরও দুই মাসের জেল) অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।
অভিযান চলাকালে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইজাজুর রহমান,যুবলীগ নেতা অনু আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।
নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে’কে বলেন, পাহাড় খেকোদের ধরতে প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। যে বা যারা যতই ক্ষমতাধর প্রভাবশালী হউক সরকারি সম্পত্তি রক্ষায় প্রশাসন কঠোর অবস্থানে থাকবে।
আজকের সর্বশেষ সব খবর