বুধবার | ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

মানব পাচারের অভিযোগে জসিম নামে এক প্রতারকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত :

মখলিছ মিয়া ॥ বানিয়াচংয়ের সৌদি প্রবাসী সেলিনার আকুতি আমাকে বাচাঁন, ওরা আমাকে ঘরে রেখে যৌন ও শারীরিক নির্যাতন করছে। আমি ওদের হাত থেকে বাঁচতে চাই। এভাবেই স্ত্রীকে নির্যাতনের বর্ণনা দিয়েছেন সেলিনার স্বামী আমির মিয়া। সেলিনা বেগম এর বাড়ি বানিয়াচঙ্গ উপজেলার কাগাপাশা ইউনিয়নের চমকপুর গ্রামে। বিষয়টি সুষ্ঠুভাবে সমাধানের জন্য একাধিকবার জসিম এর দ্বারস্থ হলেও তাতে কর্ণপাত করেনি। অবশেষে ন্যায় বিচারের আশায় আদালতে জসিমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন সেলিনার স্বামী আমির মিয়া।
মামলায় প্রকাশ, মানব পাচার থেকে উদ্ধারের জন্য আকুতি করেছেন প্রবাসী স্ত্রী সেলিনা বেগম (২৭)। স্বামী সন্তানকে নিয়ে সুখে থাকার স্বপ্ন দেখে পাড়ি দিয়েছিল সৌদি আরবে। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে বিমানে সৌদি আরবে গিয়ে পৌছান। ওই দিনই মোবাইলে পৌঁছানোর বিষয়টি জানানোর কথা থাকলেও জানানো হয়েছে ১৪ দিন পর। গত ২ মার্চ প্রবাসী স্ত্রী সেলিনা বেগম তার স্বামীকে জানায়, সৌদি আরবে পৌঁছামাত্রই মানব পাচারকারী সদস্যরা তার উপর যৌন শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করছে। এদিকে তার নিজ গ্রামের মানব পাচারকারী ও দালাল জসিম উদ্দিন (৪০)কে গ্রামের কয়কজন মুরুব্বিসহ তার স্ত্রীর বিষয়টি তাকে জানায়। এ সময় দালাল জসিম সেলিনার স্বামী আমির উদ্দিনসহ উপস্থিত অন্যদেরকে জানায়, সেলিনাকে দেশে ফেরত আনতে হলে তাকে ১ লাখ টাকা দিতে হবে। স্ত্রীর ফেরতের জন্য তাকে অনেকবার তাগিদ দিয়েও কোন রূপ কাজ হয়নি। নিরুপায় হয়ে গত ২৩ জুলাই সেলিনার স্বামী আমির বাদী হয়ে জসিম উদ্দিনকে আসামী করে হবিগঞ্জ মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন ট্র্রাইব্যুনাল-১ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। (মামলা নং মা পা ট্রাঃ নং ০৪/২০ ইং।) মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য পি.বি.আইকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

আজকের সর্বশেষ সব খবর