বৃহস্পতিবার | ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

বানিয়াচং ৫/৬ নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদ  উত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ, তদন্তের দাবি এলাকাবাসীর

প্রকাশিত :
মখলিছ মিয়া : হবিগঞ্জের  বানিয়াচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আওতাধীন ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে সরেজমিন এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। গত ক’দিন পূর্বে তোপখানা এলাকার কয়েকজন মহিলা বানিয়াচং ৫/৬নং বাজারে অবস্থিত উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যান চিকিৎসা করাতে। এসময় তাদের হাতে তুলে দেয়া হয় কিছু আয়রণ ট্যাবলেট। এ ট্যাবলেটগুলো হাতে নেয়ার পর দেখতে পান ট্যাবলেটগুলোর মেয়াদ শেষ হয়েছে জুন/২০ ইং মাসে। অথচ জুলাই মাসে তাদের হাতে এ ট্যাবলেটগুলো দেয়া হয়। এ বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানালেও বিষয়টি তারা আমলে নেয়নি। ৮ জুলাই বুধবার দুপুর ১২ টায় ওই উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় বিতরণ টেবিলের উপরে মেয়াদোত্তীর্ণ ট্যাবলেটগুলো রাখা হয়েছে। অথচ এ ট্যাবলেটগুলোর মেয়াদ শেষ হয়েছে গত জুন মাসেই। মেয়াদোত্তীর্ণ ট্যাবলেটগুলো এখনো কেন বিতরণ করতে টেবিলে রাখা হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে দায়িত্বশীলরা জানান, মেয়াদোত্তীর্ণ বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। এ বিষয়ে কথা হয় বানিয়াচং ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দায়িত্বরত ডাঃ সালাউদ্দিন সজীব এর সাথে। তিনি মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধের বিষয়ে কিছু জানতেন না বলে জানান। জুন মাসের মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ জুলাই মাসে কেন বিতরণ করা হচ্ছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। এ বিষয়ে কথা হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ইউএইচও ডাঃ আবুল হাদী মোহাম্মদ শাহ পরান এর সাথে। তিনি জানান, এই মাত্র আপনার মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম, মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধটি বিতরণ করা ঠিক হয়নি বলে তিনি দায়িত্বরতদের আরো দায়িত্ববান হওয়ার জন্য আহবান জানান।
এ দিকে এ বিষয়ে এলাকার লোকজনের সাথে কথা হলে তারা জানান, সরকারি ঔষধ নামে আছে কাজে নাই। এভাবে দিনের পর দিন মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ করে মূল ঔষধ লাপাত্তা করে দেয়ার অভিযোগও তুলেন এলাকাবাসী। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবীও জানান এলাকাবাসী
 
আজকের সর্বশেষ সব খবর