ঢাকা ১২:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত Logo গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে নানা আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন Logo মহান বিজয় দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বানিয়াচং মডেল প্রেসক্লাব Logo দেশবাসীকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‘বানিয়াচং ইসলামি নাগরিক ফোরাম’ নেতৃবৃন্দ Logo নূরানী শিক্ষা বোর্ডে মেধা তালিকায় ২য় হয়েছে গ্যানিংগঞ্জ বাজার নূরানী মাদ্রাসার ছাত্রী মুনতাহা আক্তার Logo বানিয়াচংয়ে ১২কেজি গাঁজাসহ কুখ্যাত ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo বানিয়াচং শাহজালাল কে.জি স্কুল ২০২৩ বৃত্তি পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য Logo চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন ডা. ইলিয়াছ একাডেমির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত Logo ৪০তম তাফসিরুল কোরআন মহা সম্মেলন সফল করায় আলহাজ্ব রেজাউল মোহিত খানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ Logo ইফার সাবেক ফিল্ড অফিসার আব্দুল ওয়াদুদের মৃত্যুতে জেলা মউশিক কল্যাণ পরিষদ নেতৃবৃন্দের শোক

বানিয়াচংয়ে সড়ক ও কালভার্ট ভেঙ্গে গেছে, বিদ্যুতের খুটি চরম ঝুঁকিতে

  • তরঙ্গ ২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ১১:১০:৫০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ জুন ২০২০
  • ১৪৮ বার পড়া হয়েছে

আব্দাল মিয়া, বানিয়াচং : হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়ন এর অন্তর্গত এল আর হাইস্কুল সড়কে কালভার্ট ভেঙ্গে যাওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। এত ভোগান্তি পোহাচ্ছেন পথচারীরা। কালভার্ট এবং সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় পার্শ্ববর্তী বিদ্যুতের খুটিও ঝুঁকিতে রয়েছে। সরজমিনে দেখা যায়, এল আর হাইস্কুল মাঠের উত্তর দিকে এলাকার বাড়ি-ঘরের বৃষ্টির পানি ড্রেন দিয়ে আসায় পানির বেগে কালভার্টসহ সড়কটি ঘন ঘন ভেঙ্গে যায়। ফলে বিভিন্ন যানবাহনসহ দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন পথচারীরা। অপরদিকে কালভার্টের পাশে বৈদ্যুতিক খুটিও খুব ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। কালভার্টসহ সড়ক যদি দ্রুত সংস্কার করা না হয় তাহলে বৃষ্টির পানিতে সড়কের পাশের বৈদ্যুতিক খুটি যে কোন সময় ধ্বসে পড়তে পারে!

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সড়কটি দীর্ঘদিন যাবত এই অবস্থা থাকার পরও সেটি সংস্কার করতে আদৌ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। যতবারই ভেঙ্গে যায়, ততবারই স্বেচ্ছায় এলাকার সচেতন যুবকদেরকে নিয়ে সাময়িক সংস্কার করা হয়। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন অসংখ্য বাস, জিপ, ট্রাক, মাইক্রো, ইজিবাইক ও টমটমসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করছে। এছাড়াও দুইটি কিন্ডারগার্টেন, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হাজার-হাজার শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়ত যাতায়াত করেন। তাই এ সড়ক ও কালভার্টটি দ্রুত সংস্কার করতে জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।
এ ব্যাপারে ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রেখাছ মিয়া জানান, গত বছর আমার পরিষদ থেকে ১০ হাজার টাকা মাটি ফেলার জন্য বরাদ্দ দিয়েছি। এখনও আমি সহায়তা করে যাচ্ছি। আবার কালভার্টটি ভেঙ্গে যানবাহন চলাচলের অনুপযোগি হয়ে গেছে। উপজেলা প্রকৌশলী আশ্বস্থ করেছেন নতুন করে একটি কালভার্ট নির্মাণ করে দিবেন।

উপজেলা প্রকৌশলী আল-নূর তারেক ‘তরঙ্গ টুয়েন্টিফোর ডটকম’কে জানান, কালভার্টটি টেন্ডার হয়ে গেছে। এখন করোনা পরিস্তিতির জন্য কাজটি পিছিয়ে গেছে। কিছুদিনের মধ্যেই কালভার্টসহ সড়ক মেরামত করা হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত

বানিয়াচংয়ে সড়ক ও কালভার্ট ভেঙ্গে গেছে, বিদ্যুতের খুটি চরম ঝুঁকিতে

আপডেট সময় ১১:১০:৫০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ জুন ২০২০

আব্দাল মিয়া, বানিয়াচং : হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়ন এর অন্তর্গত এল আর হাইস্কুল সড়কে কালভার্ট ভেঙ্গে যাওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। এত ভোগান্তি পোহাচ্ছেন পথচারীরা। কালভার্ট এবং সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় পার্শ্ববর্তী বিদ্যুতের খুটিও ঝুঁকিতে রয়েছে। সরজমিনে দেখা যায়, এল আর হাইস্কুল মাঠের উত্তর দিকে এলাকার বাড়ি-ঘরের বৃষ্টির পানি ড্রেন দিয়ে আসায় পানির বেগে কালভার্টসহ সড়কটি ঘন ঘন ভেঙ্গে যায়। ফলে বিভিন্ন যানবাহনসহ দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন পথচারীরা। অপরদিকে কালভার্টের পাশে বৈদ্যুতিক খুটিও খুব ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। কালভার্টসহ সড়ক যদি দ্রুত সংস্কার করা না হয় তাহলে বৃষ্টির পানিতে সড়কের পাশের বৈদ্যুতিক খুটি যে কোন সময় ধ্বসে পড়তে পারে!

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সড়কটি দীর্ঘদিন যাবত এই অবস্থা থাকার পরও সেটি সংস্কার করতে আদৌ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। যতবারই ভেঙ্গে যায়, ততবারই স্বেচ্ছায় এলাকার সচেতন যুবকদেরকে নিয়ে সাময়িক সংস্কার করা হয়। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন অসংখ্য বাস, জিপ, ট্রাক, মাইক্রো, ইজিবাইক ও টমটমসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করছে। এছাড়াও দুইটি কিন্ডারগার্টেন, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হাজার-হাজার শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়ত যাতায়াত করেন। তাই এ সড়ক ও কালভার্টটি দ্রুত সংস্কার করতে জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।
এ ব্যাপারে ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রেখাছ মিয়া জানান, গত বছর আমার পরিষদ থেকে ১০ হাজার টাকা মাটি ফেলার জন্য বরাদ্দ দিয়েছি। এখনও আমি সহায়তা করে যাচ্ছি। আবার কালভার্টটি ভেঙ্গে যানবাহন চলাচলের অনুপযোগি হয়ে গেছে। উপজেলা প্রকৌশলী আশ্বস্থ করেছেন নতুন করে একটি কালভার্ট নির্মাণ করে দিবেন।

উপজেলা প্রকৌশলী আল-নূর তারেক ‘তরঙ্গ টুয়েন্টিফোর ডটকম’কে জানান, কালভার্টটি টেন্ডার হয়ে গেছে। এখন করোনা পরিস্তিতির জন্য কাজটি পিছিয়ে গেছে। কিছুদিনের মধ্যেই কালভার্টসহ সড়ক মেরামত করা হবে।