ঢাকা ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত Logo গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে নানা আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন Logo মহান বিজয় দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বানিয়াচং মডেল প্রেসক্লাব Logo দেশবাসীকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‘বানিয়াচং ইসলামি নাগরিক ফোরাম’ নেতৃবৃন্দ Logo নূরানী শিক্ষা বোর্ডে মেধা তালিকায় ২য় হয়েছে গ্যানিংগঞ্জ বাজার নূরানী মাদ্রাসার ছাত্রী মুনতাহা আক্তার Logo বানিয়াচংয়ে ১২কেজি গাঁজাসহ কুখ্যাত ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo বানিয়াচং শাহজালাল কে.জি স্কুল ২০২৩ বৃত্তি পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য Logo চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন ডা. ইলিয়াছ একাডেমির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত Logo ৪০তম তাফসিরুল কোরআন মহা সম্মেলন সফল করায় আলহাজ্ব রেজাউল মোহিত খানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ Logo ইফার সাবেক ফিল্ড অফিসার আব্দুল ওয়াদুদের মৃত্যুতে জেলা মউশিক কল্যাণ পরিষদ নেতৃবৃন্দের শোক

বানিয়াচংয়ে মক্রমপুর মসজিদে কিয়াম করাকে কেন্দ্র করে সুন্নি ও তাবলিগ জামাতের বিরোধ নিস্পত্তি

  • তরঙ্গ ২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৪:৩০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অগাস্ট ২০২০
  • ৯৯ বার পড়া হয়েছে

শিব্বির আহমদ আরজু/ আক্তার হোসেন আল হাদী : বানিয়াচংয়ে মক্রমপুর গ্রামে শাহী জামে মসজিদে কিয়াম করাকে কেন্দ্র করে সুন্নী ও তাবলিগ জামাতের লোকদের মাঝে সৃষ্ট সংঘর্ষের ঘটনাটি নিস্পত্তি করা হয়েছে। শনিবার ( ২২ আগস্ট) ১১ নং মক্রমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আহাদ মিয়ার সভাপতিত্বে ইউনিয়ন কার্যালয়ে সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয়  মিলাদ মাহফিল ও কিয়াম জুমআর নামাজের পরে হবে। যারা কিয়াম করবেন না তারা নামাজ পড়ে যথারীতি প্রস্থান করবেন। এতে করে উভয় পক্ষ কোন ঝাঁমেলায় ঝড়াবে না মর্মে অঙ্গিকার করেন। সেই সাথে যাদের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করা হয়েছে তাদের কাছে  ক্ষমা চেয়েছে অপরাধীরা।

ছবি- সালিশ বৈঠকের একাংশ।

সালিশ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ূন কবির রেজা, সুজাতপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর গোলাম মুর্শেদ, তিতু মিয়াসহ স্থানীয় আলেম-উলামা, ইউপি সদস্য এবং সুন্নি ও তাবলিগ জামাতের নেতৃবৃন্দ। এ ব্যাপারে  বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) মোহাম্মদ এমরান হোসেন তরঙ্গ টুয়েন্টিফোর ডট কমকে জানান, উভয় পক্ষের নেতৃবৃন্দ আর কোন ঝাঁমেলায় ঝড়াবেন না বলে সালিশ বৈঠকে অঙ্গিকার করেন। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

উল্লেখ্য,গত শুক্রবার ( ২১ আগস্ট) বানিয়াচং উপজেলার ১১ নং মক্রমপুর ইউনিয়নে মক্রমপুর শাহী মসজিদে জুমআর নামাজের আগে মিলাদ মাহফিল ও কিয়াম পড়াকে কেন্দ্র করে তাবলিগ জামাতের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে সুন্নি পন্থিরা। এঘটনা জানাজানি হলে বানিয়াচংয়ের আলেম-উলামাসহ ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়।বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন এর সার্বিক তত্ত্ববধানে ও ইউপি চেয়ারম্যানসহ পঞ্চায়েত ব্যক্তিদের মধ্যস্থতায় সৃষ্ট বিরোধটি নিরসন করা হয়। এতে উভয় পক্ষের অনুসারীদের ক্ষোভ প্রশমিত হয়েছে। থানার এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন সচেতন মহল।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত

বানিয়াচংয়ে মক্রমপুর মসজিদে কিয়াম করাকে কেন্দ্র করে সুন্নি ও তাবলিগ জামাতের বিরোধ নিস্পত্তি

আপডেট সময় ০৪:৩০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অগাস্ট ২০২০

শিব্বির আহমদ আরজু/ আক্তার হোসেন আল হাদী : বানিয়াচংয়ে মক্রমপুর গ্রামে শাহী জামে মসজিদে কিয়াম করাকে কেন্দ্র করে সুন্নী ও তাবলিগ জামাতের লোকদের মাঝে সৃষ্ট সংঘর্ষের ঘটনাটি নিস্পত্তি করা হয়েছে। শনিবার ( ২২ আগস্ট) ১১ নং মক্রমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আহাদ মিয়ার সভাপতিত্বে ইউনিয়ন কার্যালয়ে সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয়  মিলাদ মাহফিল ও কিয়াম জুমআর নামাজের পরে হবে। যারা কিয়াম করবেন না তারা নামাজ পড়ে যথারীতি প্রস্থান করবেন। এতে করে উভয় পক্ষ কোন ঝাঁমেলায় ঝড়াবে না মর্মে অঙ্গিকার করেন। সেই সাথে যাদের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করা হয়েছে তাদের কাছে  ক্ষমা চেয়েছে অপরাধীরা।

ছবি- সালিশ বৈঠকের একাংশ।

সালিশ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ূন কবির রেজা, সুজাতপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর গোলাম মুর্শেদ, তিতু মিয়াসহ স্থানীয় আলেম-উলামা, ইউপি সদস্য এবং সুন্নি ও তাবলিগ জামাতের নেতৃবৃন্দ। এ ব্যাপারে  বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) মোহাম্মদ এমরান হোসেন তরঙ্গ টুয়েন্টিফোর ডট কমকে জানান, উভয় পক্ষের নেতৃবৃন্দ আর কোন ঝাঁমেলায় ঝড়াবেন না বলে সালিশ বৈঠকে অঙ্গিকার করেন। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

উল্লেখ্য,গত শুক্রবার ( ২১ আগস্ট) বানিয়াচং উপজেলার ১১ নং মক্রমপুর ইউনিয়নে মক্রমপুর শাহী মসজিদে জুমআর নামাজের আগে মিলাদ মাহফিল ও কিয়াম পড়াকে কেন্দ্র করে তাবলিগ জামাতের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে সুন্নি পন্থিরা। এঘটনা জানাজানি হলে বানিয়াচংয়ের আলেম-উলামাসহ ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়।বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন এর সার্বিক তত্ত্ববধানে ও ইউপি চেয়ারম্যানসহ পঞ্চায়েত ব্যক্তিদের মধ্যস্থতায় সৃষ্ট বিরোধটি নিরসন করা হয়। এতে উভয় পক্ষের অনুসারীদের ক্ষোভ প্রশমিত হয়েছে। থানার এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন সচেতন মহল।