ঢাকা ০১:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত Logo গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে নানা আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন Logo মহান বিজয় দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বানিয়াচং মডেল প্রেসক্লাব Logo দেশবাসীকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‘বানিয়াচং ইসলামি নাগরিক ফোরাম’ নেতৃবৃন্দ Logo নূরানী শিক্ষা বোর্ডে মেধা তালিকায় ২য় হয়েছে গ্যানিংগঞ্জ বাজার নূরানী মাদ্রাসার ছাত্রী মুনতাহা আক্তার Logo বানিয়াচংয়ে ১২কেজি গাঁজাসহ কুখ্যাত ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo বানিয়াচং শাহজালাল কে.জি স্কুল ২০২৩ বৃত্তি পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য Logo চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন ডা. ইলিয়াছ একাডেমির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত Logo ৪০তম তাফসিরুল কোরআন মহা সম্মেলন সফল করায় আলহাজ্ব রেজাউল মোহিত খানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ Logo ইফার সাবেক ফিল্ড অফিসার আব্দুল ওয়াদুদের মৃত্যুতে জেলা মউশিক কল্যাণ পরিষদ নেতৃবৃন্দের শোক

বানিয়াচংয়ে আদর্শ বাজার ব্যকস এর কমিটি নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ এ্যসল্ট মামলা

  • তরঙ্গ ২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০২:৫৪:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১
  • ১৩০ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার : বানিয়াচংয়ে আদর্শ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির কমিটিকে কেন্দ্র করে ২ পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় ১৭ জন এর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৪০/৫০ জনকে আসামী করে বানিয়াচং থানায় পুলিশ এ্যসল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) বানিয়াচং থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন এস আই (নিঃ) মোঃ ইদ্রিস আলী ।

মামলা নং-১৩। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টায় উপজেলা সদরের ১নং উত্তর-পূর্ব ইউনিয়নের অন্তর্গত মাতাপুর গ্রামের এস এম আলী আক্কাস এর ছেলে এস এম হাফিজুর রহমান (৫০) ও একই এলাকার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে রমজান আলী (৪৭) বাজার কমিটির নেতৃত্ব এবং এলাকার সর্দার নিয়োগ হওয়াকে কেন্দ্র করে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ভয়াবহ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেনসহ উভয় পক্ষের অন্তত অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হন।

মামলার আসামীরা হচ্ছেন (১) তকবাজখানী মহল্লার মাওদ উল্লার পুত্র সাবান মিয়া (২৪),(২) মৃত রমেশ এর পুত্র সাইকুল (৩০),(৩) মাতাপুর গ্রামের এস এম আলী আক্কাসের পুত্র এস এম হাফিজুর রহমান (৫০),

 

 

ছবি- সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন।

(৪) মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র রমজান আলী শাহ(৪৭),(৫) সৈদ্যাটুলা গ্রামের মৃত নূর উদ্দিন খান এর ছেলে ইকবাল হোসেন খান বাহার (৫০),(৬) সাইদ উল্লাহর পুত্র নূর আহমদ (৪০),(৭) আব্দুর রহমান এর পুত্র মোতালিম মিয়া (৩৫),(৮) মৃত ধনাই মিয়ার পুত্র আনোয়ার মিয়া (৪২),

(৯) আলকাছ উল্লাহর পুত্র হাবিবুর মিয়া (৩৮), (১০) মৃত আব্দুস সাত্তার মিয়ার পুত্র জুলহাস মিয়া (৩৫),(১১) মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র রমজান আলী (৪৫),(১২) মোতাব্বির মিয়ার পুত্র আজাদ মিয়া (৩৮),(১৩) জহুর হোসেন এর পুত্র সেলিম মিয়া (৪০), (১৪) মৃত মামদ মিয়ার পুত্র নানু মিয়া (৪০),(১৫) জহুর হোসেন এর পুত্র রামিম মিয়া(২৫),(১৬) মৃত একরাম হোসেন এর পুত্র আলী আকবর (৫৫) ও (১৭) জাহেদ মিয়ার পুত্র ইমরান মিয়া (৩৮)।

মামলার পর থেকে পুলিশের ভয়ে গা ঢাকা দিয়ে থাকছেন অভিযুক্তসহ অপরাপর অজ্ঞাতনামা আসামীরা। এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন তরঙ্গ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে পুলিশ এ্যসল্ট মামলাটি হওয়ার কথা স্বীকার করে তিনি নিজে গুরুতর আহত হয়েছেন এবং এ সংঘর্ষের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত

বানিয়াচংয়ে আদর্শ বাজার ব্যকস এর কমিটি নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ এ্যসল্ট মামলা

আপডেট সময় ০২:৫৪:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার : বানিয়াচংয়ে আদর্শ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির কমিটিকে কেন্দ্র করে ২ পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় ১৭ জন এর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৪০/৫০ জনকে আসামী করে বানিয়াচং থানায় পুলিশ এ্যসল্ট মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) বানিয়াচং থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন এস আই (নিঃ) মোঃ ইদ্রিস আলী ।

মামলা নং-১৩। মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টায় উপজেলা সদরের ১নং উত্তর-পূর্ব ইউনিয়নের অন্তর্গত মাতাপুর গ্রামের এস এম আলী আক্কাস এর ছেলে এস এম হাফিজুর রহমান (৫০) ও একই এলাকার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে রমজান আলী (৪৭) বাজার কমিটির নেতৃত্ব এবং এলাকার সর্দার নিয়োগ হওয়াকে কেন্দ্র করে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ভয়াবহ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেনসহ উভয় পক্ষের অন্তত অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হন।

মামলার আসামীরা হচ্ছেন (১) তকবাজখানী মহল্লার মাওদ উল্লার পুত্র সাবান মিয়া (২৪),(২) মৃত রমেশ এর পুত্র সাইকুল (৩০),(৩) মাতাপুর গ্রামের এস এম আলী আক্কাসের পুত্র এস এম হাফিজুর রহমান (৫০),

 

 

ছবি- সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন।

(৪) মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র রমজান আলী শাহ(৪৭),(৫) সৈদ্যাটুলা গ্রামের মৃত নূর উদ্দিন খান এর ছেলে ইকবাল হোসেন খান বাহার (৫০),(৬) সাইদ উল্লাহর পুত্র নূর আহমদ (৪০),(৭) আব্দুর রহমান এর পুত্র মোতালিম মিয়া (৩৫),(৮) মৃত ধনাই মিয়ার পুত্র আনোয়ার মিয়া (৪২),

(৯) আলকাছ উল্লাহর পুত্র হাবিবুর মিয়া (৩৮), (১০) মৃত আব্দুস সাত্তার মিয়ার পুত্র জুলহাস মিয়া (৩৫),(১১) মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র রমজান আলী (৪৫),(১২) মোতাব্বির মিয়ার পুত্র আজাদ মিয়া (৩৮),(১৩) জহুর হোসেন এর পুত্র সেলিম মিয়া (৪০), (১৪) মৃত মামদ মিয়ার পুত্র নানু মিয়া (৪০),(১৫) জহুর হোসেন এর পুত্র রামিম মিয়া(২৫),(১৬) মৃত একরাম হোসেন এর পুত্র আলী আকবর (৫৫) ও (১৭) জাহেদ মিয়ার পুত্র ইমরান মিয়া (৩৮)।

মামলার পর থেকে পুলিশের ভয়ে গা ঢাকা দিয়ে থাকছেন অভিযুক্তসহ অপরাপর অজ্ঞাতনামা আসামীরা। এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেন তরঙ্গ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে পুলিশ এ্যসল্ট মামলাটি হওয়ার কথা স্বীকার করে তিনি নিজে গুরুতর আহত হয়েছেন এবং এ সংঘর্ষের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন।