ঢাকা ১১:৫০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত Logo গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে নানা আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন Logo মহান বিজয় দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বানিয়াচং মডেল প্রেসক্লাব Logo দেশবাসীকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‘বানিয়াচং ইসলামি নাগরিক ফোরাম’ নেতৃবৃন্দ Logo নূরানী শিক্ষা বোর্ডে মেধা তালিকায় ২য় হয়েছে গ্যানিংগঞ্জ বাজার নূরানী মাদ্রাসার ছাত্রী মুনতাহা আক্তার Logo বানিয়াচংয়ে ১২কেজি গাঁজাসহ কুখ্যাত ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo বানিয়াচং শাহজালাল কে.জি স্কুল ২০২৩ বৃত্তি পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য Logo চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন ডা. ইলিয়াছ একাডেমির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত Logo ৪০তম তাফসিরুল কোরআন মহা সম্মেলন সফল করায় আলহাজ্ব রেজাউল মোহিত খানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ Logo ইফার সাবেক ফিল্ড অফিসার আব্দুল ওয়াদুদের মৃত্যুতে জেলা মউশিক কল্যাণ পরিষদ নেতৃবৃন্দের শোক

এক ববির বেড়ে উঠা

  • তরঙ্গ ২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০৩:২৬:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২০
  • ১৭৯ বার পড়া হয়েছে
শুয়েব চৌধুরী :
ববি।পুরো নাম শাকিলা ববি। হবিগঞ্জ শহরে পরিচিত মুখ। খেলাধুলা, নাটক,ডিবেটিং, বিএনসিসি,সামাজিক সব কর্মকাণ্ডে তার বিচরণ। কম বয়সেই নিজে নিজেই পরিচিতি লাভ করে।
সম্ভবত ৭/৮ বছর আগে সাংবাদিকতার উকুন তার মাথায় বাসা বাঁধে। স্থানীয় একটি পত্রিকায় যোগ দেয়। ওই অফিসে প্রায়ই যেতাম। আমরা একই গ্রামের লোক হওযায় সম্পর্কে দাঁড়ায় দাদা নাতনী। সাংবাদিকতার প্রতি তার দুর্বলতা দেখে মনে মনে ভাবতাম, মেয়ে, এই ছোট শহরে তোর সাংবাদিকতা তো হবেনা বরং নানা বদনামে পরিবার পর্যন্ত ছোঁবে।
চাচা নোমান চৌধুরী মারা যাওয়ার পর ২০১৬ সালে দৈনিক প্রভাকর এর সম্পাদনার দায়িত্ব পড়ে আমার ঘাড়ে। কাকে নিয়ে বের করবো নানা চিন্তায় আমি। ববি নিজেই দাঁড়ায় আমার পাশে। একে তো নতুন অন্যদিকে অবিবাহিত। আর্থিক টানাপোড়েন তো আছেই। এক রাত না ঘুমিয়ে ভেবেও কোনো সমাধান পাইনি। এরপর সাতপাঁচ না ভেবে ঝুঁকি নিলাম। তাকে নিয়ে পত্রিকা বের করবো,আল্লাহ ভরসা। কয়েকটি ঝুঁকিপূর্ন এসাইনমেন্ট দিয়ে টেষ্ট করলাম। দেখলাম ঝুঁকিকে সে আনন্দ হিসেবে নেয়। অর্থাৎ পরীক্ষায় পাস। বেশ ক’টি নিউজ প্রভাকরকে নতুনভাবে পরিচয় করে দেয় পাঠকের কাছে। এ জগতে যতটুকু অভিজ্ঞতা হয়েছে সবকিছু তাকে শেয়ার করার চেষ্টা করেছি। প্রচার সংখ্যার ব্যারোমিটার যখন উর্ধদিকে তখনই একটি সংবাদের জেরে ২ করা ৪টি (৫৭ ধারায়) মামলায় আমাকে কারাগারে যেতে হল। কতিপয় নামধারী সাংবাদিকের পরামর্শে সেদিন ববির বাসায়ও পুলিশ গিয়ে নানা হুমকিধামকি দিয়ে এসেছে বলে শুনেছি।
অবিবাহিত। কারাগার থেকে বের হয়ে কিছুদিন পত্রিকা বের করে মনে হল একাজ আমার নয়। সংবাদ আর আর্থিক যোগান দেয়ার দুটো চিন্তা করা আমার একার পক্ষে অসম্ভব। আমার মনে হয়েছে এটা কলম দিয়ে ডাকাতি করার মতো।
যাই হোক, এর কিছুদিন পরববির বিয়ে হয়ে গেল সিলেটের ফটো সাংবাদিক মামুনের সাথে। সেখানের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে কাজ করছে। ইতোমধ্যে সিলেটেও সাংবাদিক মহলে পরিচিতি পেয়েছে। গতকাল তার কোল জুড়ে এসেছে রাজকন্যা। এ সুখবর মিলাতে না মিলাতে আজ কিছুক্ষণ আগে হাসপাতাল থেকে আরেকটা শুভ সংবাদ। তা হচ্ছে সিলেট মূল প্রেসক্লাবে সে সদস্যপদ লাভ করেছে। হবিগঞ্জে থাকার সময় প্রায়ই বলতো একটা জাতীয় পত্রিকা বা টিভি চ্যানেলের প্রতিনিধি হলে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবে আবেদন করবো। আমাদের মতো ছোট মানসিকতায় তার স্থান প্রেসক্লাবে হতো কি না সন্দেহ। আল্লাহ হয়তো তার মনোবাসনা শুনেছেন। তবে ছোট করে নয়। বড় করে। “স্থান ছাড়লে মান কমে” এ কথাটি সব সময়ই যে সত্য নয় তাই প্রমান করলো সে। আমার সহধর্মিণী শাম্মি প্রায়ই বলতো ঢাকায় গেলে ববি আরো ভালো করতো।
ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত

এক ববির বেড়ে উঠা

আপডেট সময় ০৩:২৬:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২০
শুয়েব চৌধুরী :
ববি।পুরো নাম শাকিলা ববি। হবিগঞ্জ শহরে পরিচিত মুখ। খেলাধুলা, নাটক,ডিবেটিং, বিএনসিসি,সামাজিক সব কর্মকাণ্ডে তার বিচরণ। কম বয়সেই নিজে নিজেই পরিচিতি লাভ করে।
সম্ভবত ৭/৮ বছর আগে সাংবাদিকতার উকুন তার মাথায় বাসা বাঁধে। স্থানীয় একটি পত্রিকায় যোগ দেয়। ওই অফিসে প্রায়ই যেতাম। আমরা একই গ্রামের লোক হওযায় সম্পর্কে দাঁড়ায় দাদা নাতনী। সাংবাদিকতার প্রতি তার দুর্বলতা দেখে মনে মনে ভাবতাম, মেয়ে, এই ছোট শহরে তোর সাংবাদিকতা তো হবেনা বরং নানা বদনামে পরিবার পর্যন্ত ছোঁবে।
চাচা নোমান চৌধুরী মারা যাওয়ার পর ২০১৬ সালে দৈনিক প্রভাকর এর সম্পাদনার দায়িত্ব পড়ে আমার ঘাড়ে। কাকে নিয়ে বের করবো নানা চিন্তায় আমি। ববি নিজেই দাঁড়ায় আমার পাশে। একে তো নতুন অন্যদিকে অবিবাহিত। আর্থিক টানাপোড়েন তো আছেই। এক রাত না ঘুমিয়ে ভেবেও কোনো সমাধান পাইনি। এরপর সাতপাঁচ না ভেবে ঝুঁকি নিলাম। তাকে নিয়ে পত্রিকা বের করবো,আল্লাহ ভরসা। কয়েকটি ঝুঁকিপূর্ন এসাইনমেন্ট দিয়ে টেষ্ট করলাম। দেখলাম ঝুঁকিকে সে আনন্দ হিসেবে নেয়। অর্থাৎ পরীক্ষায় পাস। বেশ ক’টি নিউজ প্রভাকরকে নতুনভাবে পরিচয় করে দেয় পাঠকের কাছে। এ জগতে যতটুকু অভিজ্ঞতা হয়েছে সবকিছু তাকে শেয়ার করার চেষ্টা করেছি। প্রচার সংখ্যার ব্যারোমিটার যখন উর্ধদিকে তখনই একটি সংবাদের জেরে ২ করা ৪টি (৫৭ ধারায়) মামলায় আমাকে কারাগারে যেতে হল। কতিপয় নামধারী সাংবাদিকের পরামর্শে সেদিন ববির বাসায়ও পুলিশ গিয়ে নানা হুমকিধামকি দিয়ে এসেছে বলে শুনেছি।
অবিবাহিত। কারাগার থেকে বের হয়ে কিছুদিন পত্রিকা বের করে মনে হল একাজ আমার নয়। সংবাদ আর আর্থিক যোগান দেয়ার দুটো চিন্তা করা আমার একার পক্ষে অসম্ভব। আমার মনে হয়েছে এটা কলম দিয়ে ডাকাতি করার মতো।
যাই হোক, এর কিছুদিন পরববির বিয়ে হয়ে গেল সিলেটের ফটো সাংবাদিক মামুনের সাথে। সেখানের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে কাজ করছে। ইতোমধ্যে সিলেটেও সাংবাদিক মহলে পরিচিতি পেয়েছে। গতকাল তার কোল জুড়ে এসেছে রাজকন্যা। এ সুখবর মিলাতে না মিলাতে আজ কিছুক্ষণ আগে হাসপাতাল থেকে আরেকটা শুভ সংবাদ। তা হচ্ছে সিলেট মূল প্রেসক্লাবে সে সদস্যপদ লাভ করেছে। হবিগঞ্জে থাকার সময় প্রায়ই বলতো একটা জাতীয় পত্রিকা বা টিভি চ্যানেলের প্রতিনিধি হলে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবে আবেদন করবো। আমাদের মতো ছোট মানসিকতায় তার স্থান প্রেসক্লাবে হতো কি না সন্দেহ। আল্লাহ হয়তো তার মনোবাসনা শুনেছেন। তবে ছোট করে নয়। বড় করে। “স্থান ছাড়লে মান কমে” এ কথাটি সব সময়ই যে সত্য নয় তাই প্রমান করলো সে। আমার সহধর্মিণী শাম্মি প্রায়ই বলতো ঢাকায় গেলে ববি আরো ভালো করতো।