ঢাকা ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত Logo গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে নানা আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন Logo মহান বিজয় দিবসে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে বানিয়াচং মডেল প্রেসক্লাব Logo দেশবাসীকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‘বানিয়াচং ইসলামি নাগরিক ফোরাম’ নেতৃবৃন্দ Logo নূরানী শিক্ষা বোর্ডে মেধা তালিকায় ২য় হয়েছে গ্যানিংগঞ্জ বাজার নূরানী মাদ্রাসার ছাত্রী মুনতাহা আক্তার Logo বানিয়াচংয়ে ১২কেজি গাঁজাসহ কুখ্যাত ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার Logo বানিয়াচং শাহজালাল কে.জি স্কুল ২০২৩ বৃত্তি পরীক্ষায় ঈর্ষণীয় সাফল্য Logo চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন ডা. ইলিয়াছ একাডেমির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত Logo ৪০তম তাফসিরুল কোরআন মহা সম্মেলন সফল করায় আলহাজ্ব রেজাউল মোহিত খানের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ Logo ইফার সাবেক ফিল্ড অফিসার আব্দুল ওয়াদুদের মৃত্যুতে জেলা মউশিক কল্যাণ পরিষদ নেতৃবৃন্দের শোক

আজ অধ্যাপক ড. আব্দুল কুদ্দুসের ১৪ তম মৃত্যু বার্ষিকী

  • তরঙ্গ ২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় ০১:০০:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০
  • ১৪১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :  আজ ( ১২ সেপ্টেম্বর) বিশ্বখ্যাত গণিতবিদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আব্দুল কুদ্দুসের ১৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৬ সনের এ দিনে তিনি ইন্তেকাল করেন। ড. আব্দুল কুদ্দুস ১৯৪৮ সনের ২৫ নভেম্বর হবিগঞ্জ জেলাধীন পৃথিবীর সর্ববৃহৎ গ্রাম বানিয়াচংয়ের প্রথমরেখ মহল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। প্রথমরেখ গ্রামের প্রথম নামের সাথে তার জীবনের বিভিন্ন মিলও আছে। যেমন তিনি ছিলেন মা- বাবার প্রথম পুত্র সন্তান, উপজেলার প্রথম ডক্টরেট ও প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, গণিত শাস্ত্রে সিলেট বিভাগের প্রথম ডক্টরেট। তার পিতা মরহুম মোঃ পারু মিয়া ছিলেন গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আজীবন সেক্রেটারি, জনাব আলী সরকারি কলেজ ও এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, বানিয়াচং সরকারি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার অন্যতম উদ্যোক্তা। প্রফের ড. মোঃ আব্দুল কুদ্দুস ১৯৬৪ সনে এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় হতে প্রথম বিভাগে মেট্রিক, ১৯৬৬ সনে এমসি কলেজ হতে আই এসসি ও ১৯৭০ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে প্রথম শ্রেনিতে অনার্সসহ এমএসসি পাশ করেন। তাঁর আগ্রহ ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার। কিন্তু শিক্ষকতায় যোগদানে বিলম্ব ঘটতে থাকলে তিনি সরকারি চাকরিতে যোগদানের চেষ্টা না করে পিএইচ.ডি গবেষণা শুরু করেন এবং ১৯৮১ সনে প্রফেসর ড. মোঃ রমজান আলী সরদারের তত্ত্বাবধানে পিএইচ.ডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তার পিএইচ.ডি অভিসন্দর্ভের বিষয় ছিল theory of generalised function. এটি বিশুদ্ধ গণিত ( pure mathematics) এর অত্যন্ত কঠিন বিষয় কিন্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এরপর তিনি পোস্ট ডক্টরাল ডিগ্রিও অর্জন করেন। এছাড়াও ১৯৮২ সনে তিনি নোবেল বিজয়ী পদার্থবিজ্ঞানী প্রফেসর ড.  আব্দুস সালাম কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত এবং ইটালীর ট্রিয়েস্ট্রিতে অবস্থিত international centre for theoretical physics – এ উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে তিনি অস্ট্রিয়ায়ও উচ্চতর গবেষণা করেন। দীর্ঘ ১৬ বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বিদেশে গণিতে উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণার পর ড. আব্দুল কুদ্দুসের স্বপ্ন পূরণ হয়। তিনি ১৯৮৬ সনের ১৪ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগদান করতে সক্ষম হন। ১৯৮৮ সনের ১ অক্টোবর তিনি সহকারি অধ্যাপক, ১৯৯৩ সনের ২১ জুলাই সহযোগি অধ্যাপক এবং ২৭ মার্চ ২০০১ সনে প্রফেসর পদে উন্নীত হন। ব্যক্তি জীবনে ড. মোঃ আব্দুল কুদ্দুস ছিলেন অত্যন্ত প্রচারবিমুখ, সৎ, ধার্মিক ও দেশপ্রেমিক শিক্ষাবিদ। তিনি ছিলেন আপাদমস্তক একজন শিক্ষক। যে কারণে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো প্রশাসনিক দায়িত্ব কখনোই গ্রহণ করেননি। ২০০৬ সনের ১২ সেপ্টেম্বর তিনি চাকরিরত থাকাকালীন নিঃসন্তান অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন।

 

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সাংবাদিক মঈন উদ্দিন এঁর পিতার মৃত্যুতে তরঙ্গ২৪.কম পরিবার গভীরভাবে শোকাহত

আজ অধ্যাপক ড. আব্দুল কুদ্দুসের ১৪ তম মৃত্যু বার্ষিকী

আপডেট সময় ০১:০০:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক :  আজ ( ১২ সেপ্টেম্বর) বিশ্বখ্যাত গণিতবিদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আব্দুল কুদ্দুসের ১৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৬ সনের এ দিনে তিনি ইন্তেকাল করেন। ড. আব্দুল কুদ্দুস ১৯৪৮ সনের ২৫ নভেম্বর হবিগঞ্জ জেলাধীন পৃথিবীর সর্ববৃহৎ গ্রাম বানিয়াচংয়ের প্রথমরেখ মহল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। প্রথমরেখ গ্রামের প্রথম নামের সাথে তার জীবনের বিভিন্ন মিলও আছে। যেমন তিনি ছিলেন মা- বাবার প্রথম পুত্র সন্তান, উপজেলার প্রথম ডক্টরেট ও প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, গণিত শাস্ত্রে সিলেট বিভাগের প্রথম ডক্টরেট। তার পিতা মরহুম মোঃ পারু মিয়া ছিলেন গ্যানিংগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আজীবন সেক্রেটারি, জনাব আলী সরকারি কলেজ ও এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, বানিয়াচং সরকারি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার অন্যতম উদ্যোক্তা। প্রফের ড. মোঃ আব্দুল কুদ্দুস ১৯৬৪ সনে এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় হতে প্রথম বিভাগে মেট্রিক, ১৯৬৬ সনে এমসি কলেজ হতে আই এসসি ও ১৯৭০ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে প্রথম শ্রেনিতে অনার্সসহ এমএসসি পাশ করেন। তাঁর আগ্রহ ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়ার। কিন্তু শিক্ষকতায় যোগদানে বিলম্ব ঘটতে থাকলে তিনি সরকারি চাকরিতে যোগদানের চেষ্টা না করে পিএইচ.ডি গবেষণা শুরু করেন এবং ১৯৮১ সনে প্রফেসর ড. মোঃ রমজান আলী সরদারের তত্ত্বাবধানে পিএইচ.ডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তার পিএইচ.ডি অভিসন্দর্ভের বিষয় ছিল theory of generalised function. এটি বিশুদ্ধ গণিত ( pure mathematics) এর অত্যন্ত কঠিন বিষয় কিন্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এরপর তিনি পোস্ট ডক্টরাল ডিগ্রিও অর্জন করেন। এছাড়াও ১৯৮২ সনে তিনি নোবেল বিজয়ী পদার্থবিজ্ঞানী প্রফেসর ড.  আব্দুস সালাম কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত এবং ইটালীর ট্রিয়েস্ট্রিতে অবস্থিত international centre for theoretical physics – এ উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে তিনি অস্ট্রিয়ায়ও উচ্চতর গবেষণা করেন। দীর্ঘ ১৬ বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বিদেশে গণিতে উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণার পর ড. আব্দুল কুদ্দুসের স্বপ্ন পূরণ হয়। তিনি ১৯৮৬ সনের ১৪ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগদান করতে সক্ষম হন। ১৯৮৮ সনের ১ অক্টোবর তিনি সহকারি অধ্যাপক, ১৯৯৩ সনের ২১ জুলাই সহযোগি অধ্যাপক এবং ২৭ মার্চ ২০০১ সনে প্রফেসর পদে উন্নীত হন। ব্যক্তি জীবনে ড. মোঃ আব্দুল কুদ্দুস ছিলেন অত্যন্ত প্রচারবিমুখ, সৎ, ধার্মিক ও দেশপ্রেমিক শিক্ষাবিদ। তিনি ছিলেন আপাদমস্তক একজন শিক্ষক। যে কারণে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো প্রশাসনিক দায়িত্ব কখনোই গ্রহণ করেননি। ২০০৬ সনের ১২ সেপ্টেম্বর তিনি চাকরিরত থাকাকালীন নিঃসন্তান অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন।