সাপাহারে সবজির মূল্য বৃদ্ধি

মনিরুল ইসলাম, সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহারে গত ১ সপ্তাহে বেড়েছে কাঁচা সবজির  দাম। প্রচুর পরিমানে আমদানী থাকলেও কিছু অসাধু ব্যবসায়ীদের জন্য কাঁচা সবজির দাম বাড়ছে বলে অভিযোগ করছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। ফলে এর প্রভাব পড়ছে মধ্য আয়ের ক্রেতাদের উপর।
সদরের কাঁচা বাজার ঘুরে জানা যায়, গত ১ সপ্তাহে বিভিন্ন সবজির প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ৫টাকা থেকে ২০ টচাকা পর্যন্ত। প্রচুর পরিমাণে প্রতিটি কাঁচা পণ্যের আমদানী থাকা সত্বেও দাম বেড়েই চলেছে। গত সপ্তাহে প্রতি কেজি পেঁয়াজের মূল্য ছিলো ২৫ টাকা, চলতি সপ্তাহে তা প্রতিকেজি ৩০ টাকা। প্রতি কেজি বেগুনের মূল্য ছিলো ১৫ টাকা , চলতি সপ্তাহে ৩০ টাকা।
শশার মূল্য ছিলো ২২ টাকা , চলতি সপ্তাহে ৩০ টাকা। খিরার মূল্য ছিলো প্রতিকেজি ১০ টাকা, চলতি সপ্তাহে ২০টাকা, আদার মূল্য ছিলো প্রতি কেজি ৫৫ টাকা, চলতি সপ্তাহে ৭০-৮০ টাকা। রসুনের মূল্য ছিলো প্রতি কেজি ৫০টাকা, চলতি সপ্তাহে ৬০ টাকা। এভাবে প্রায় প্রতিটি কাঁচা পণ্যের দাম বাড়তির পথে ।
এই উপজেলার উৎপাদিত কাঁচাপণ্য অসাধু পাইকারদের কারণে বাইরে চলে যাওয়ার ফলে অনেকটা ঘাটতি থেকে যাওয়ার কারনে বাজারমূল্য বাড়ছে বলে অভিযোগ খুচরা ব্যবসায়ীদের। এতে করে বিপাকে পড়ছেন মধ্য আয়ের ক্রেতারা। খুচরা তরকারি বিক্রেতা আমিনুল ইসলাম জানান, কাঁচা পণ্যের দাম বাড়ার কারণ হলো পাইকারী ব্যবসায়ীরা। তারা সকাল হতে ওঁৎ পেতে থাকে পাইকারী বাজারে।
সেখান থেকে পণ্য ক্রয় করে অধিক মুনাফার আশায় রাজধানীতে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। যার কারণে প্রভাব পড়ছে খুচরা বিক্রেতাদের উপর। তরকারী বিক্রেতা আলমগীর হোসেন বলেন, বিভিন্ন পাইকাররা রাস্তার পাশে বসে থেকে কাঁচা পণ্য ক্রয় করে ঢাকাতে পাঠাচ্ছে যাতে করে পাইকারী বাজারে এর প্রভাব পড়ছে। বিষয়টি নিয়ে কাঁচা বাজার সমিতির সভাপতি হাবিবুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি পাইকারদের সাথে বসে বিষয়টি নিরসনের চেষ্টা করবেন বলে এ প্রতিনিধিকে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *